পিপিলিকার সমাজ

Parent Previous Next

পিপিলিকার সমাজ :


“সোলায়মানের সম্মুখে তার সেনাবাহিনীকে সমবেত করা হল। জ্বীন, মানুষ ও পক্ষিকুলকে। অত:পর তাদরেকে বিভিন্ন দলে ভাগ করা হল। যখন তারা পিপীলিকা অধ্যষিত উপত্যকায় পৌছল, তখন এক পিপীলিকা বলল, হে পিপীলিকার দল, তোমরা তোমাদের গৃহে প্রবেশ কর। অন্যথায় সোলায়মান ও তার বাহিনী অজ্ঞাতসারে তোমাদরে পিষ্ট করে ফেলবে”( সূরা নামল: ১৭,১৮)।


কি ভাবছেন ? কোরআনে এসব রুপকথার গল্প লিখা হয়েছে কেন ?

হে বিজ্ঞানপ্রেমী, এগুলো এখন আর রুপকথা নয়! আপনার বিজ্ঞান ঘোষনা করে দিয়েছে, মানুষের সাথে সামাজিক কাঠামোয় সবথেকে মিল যে পাণীর সেটা পিপীলিকা। ওরা আরো জানিয়েছে পিপীলিকারা নাকি ওদের মৃহদেহ কবর দেয়, ওদের সমাজের কাজ নাকি ভাগ করে করে, ওদের নাকি আছে ম্যানেজার, সুপারভাইজার, শ্রমিক ইত্যাদি ব্যাবস্থা! ওরা নাকি ভবিষ্যত চিন্তা করে মানুষের মত খাদ্য মজুদ করে, আরো অবাক করা কথা কি জানেন, ওদের মজুদকৃত শষ্যদানায় যদি কুড়ি গজায় তো ওরা কুড়িগুলো কেটে ফেলে, যেন ওরা জানে, এই কুড়িগুলো ওদের শষ্যকে নষ্ট করে দিবে। আর কোনভাবে শষ্যদানাগুলো ভিযে গেলে, ওরা ওগুলো বাইরে এনে শুকাতে দেয়। যেনো ওরা জানে, এগুলো না শুকালে শষ্যগুলো পচে যাবে!

পিপীলিকাদের এই উন্নত প্রকৃতি সম্বন্ধে বিজ্ঞান আমাদরে জানালো এই কিছুদিন আগে। আর কোরআন জানিয়েছে ——-১৪০০ বছর আগে!

Created with the Personal Edition of HelpNDoc: Full-featured Kindle eBooks generator