অনেকেই বলে নাস্তিক দেশ মানেই উন্নত!


ব্যাখ্যা:
মুসলিম দেশগুলোতে ০.১% থেকে সর্বোচ্চ ১.৫% ধর্ষনের মাত্রায় নাস্তিকদের গতরে সুনামীর ঝড় বয়ে যায়

অথচ নাস্তিক ও নারীবাদীদের স্বর্গরাজ্য খ্যাত ৮৫% নাস্তিক সমৃদ্ধ, বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী নারীবাদী সংঘ অধিষ্ঠিত এবং বিশ্বের একমাত্র নারীবাদী সরকার শাসিত দেশ সুইডেনেই ১৫ বছর বয়সের আগেই ৮৫% নারী শ্লীলতাহানীর স্বীকার হয়। মাশাআল্লাহ।

বিশ্বের সর্বাধিক ৭০% ধর্ষনের ডায়মন্ড মেডেলও সুইডেনের অর্জনে, যা দেখে এক ইন্ডিয়ান আনন্দে গদগদ হয়ে মন্তব্য করেছিল, যাক বাবা ইন্ডিয়ার ইজ্জত কিছুটা হলেও রক্ষা পেল।

ঘোড়া দিয়ে পশুপর্ণ নির্মানেও বিশ্বে প্রথম স্থান অধিকারী এই সুইডেন।

বিশ্নের সর্বাধিক ৬৮% ডিভোর্সের রেকর্ডধারীও এই সুইডেন
যেখানে যখন খুশি বিক্রিত মাল! ফেরত দেয়া যায়।

এমনিতেই সুইডিস নারীদের সন্তান ধারনের ক্ষমতা নারীপ্রতি মাত্র ১.৯%।

অবশ্য যেখানে ৩৫-৩৯ বছর গ্রুপে ৫১% এবং ৪০-৪৪ বছর গ্রুপে ৫২% নারীর বিয়ে হয় তাদের ঊষর ভুমি বরগা নিয়ে খামাখা খেটে মরতে যাবে কোন হালায়?

তাছাড়া সুইডেনের মেয়েদের জরায়ুর ইলাষ্টিসিটি এতই কম যে ৭০% শিশুই জন্মের পূর্বেই গর্ভস্রাব হয়ে বের হয়ে যায়।

অতএব শান্তিকামী সুইডিশরা এসিলমকামী ছেলেদের পায়ু আর হাই ইলাষ্টিক পশু জরায়ু থাকতে বুড়িদের নাড়িভূঁড়ি পরিস্কার করতে যাবে কোন দুঃখে?

নারীবাদী/ নাস্তিকদের এ অভূতপূর্ব সাফল্যে কি ফুলের মালাদিয়ে যে সাধুবাদ জানাবো ভেবে পাই না!

Created with the Personal Edition of HelpNDoc: Create cross-platform Qt Help files