গৌতম বুদ্ধ

Parent Previous Next

গৌতম বুদ্ধ যেখানে বলেছেন “Doubt everything. Find your own light” সেখানে মুহাম্মদ কোরআন অনুসরণ করতে বলেছেন। তাহলে গৌতম বুদ্ধ যেখানে সবকিছু নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে নিজের পথ নিজেকেই খুঁজে নিতে বলেছেন সেখানে মুহাম্মদ কোরআন অনুসরণ করতে বলে সংশয়বাদ ও মুক্তচিন্তার দরজা বন্ধ করে দিয়েছেন!


জবাব:

গৌতম বুদ্ধের এই বাণীকে আপাতদৃষ্টিতে শুনতে ভালয় লাগে, বিশেষ করে অ্যান্টি-ইসলামিক মৌলবাদীদের মোক্ষম একটি ‘অস্ত্র’ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। কিন্তু বাস্তবিক দৃষ্টিকোণ থেকে তাঁর এই বাণীর মধ্যে আদৌ কোন যৌক্তিকতা আছে কি-না সেটাই দেখার বিষয়। প্রথমত, গৌতম বুদ্ধ যদি সত্যি সত্যি এই কথা বলে থাকেন তাহলে তাঁর অনুসারীরাই তো তাঁর বাণীকে মানছেন না! কারণ তারা গৌতম বুদ্ধের বাণী নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে না! গৌতম বুদ্ধের অনুসারীদের উচিত ছিল তাঁর এই বাণী অনুযায়ী নিজে নিজে একটি করে ধর্ম তৈরী করে নেয়া। কিন্তু তা না করে তারা হাজার হাজার বছর ধরে গৌতম বুদ্ধের প্রচারিত ধর্মই অনুসরণ করছেন! তাহলে গৌতম বুদ্ধের এই বাণীর মূল্য থাকলো কোথায়!


দ্বিতীয়ত, গৌতম বুদ্ধ যদি সত্যি সত্যি এই কথা বলে থাকেন তাহলে তিনি যেমন সত্য সম্পর্কে নিশ্চিত ছিলেন না তেমনি আবার তাঁর নির্বাণ লাভ শুধুমাত্র নিজের জন্য (Subjective), অন্য কারো জন্য নয়। আর তা-ই যদি হয় তাহলে বুদ্ধিজমের ‘The Four Noble Truths’ ও ‘Eightfold Path’ এর কোন অবজেকটিভিটিও থাকতে পারে না। যে কেউ নিজের মতো করে ‘Four Noble Truths’ ও ‘Eightfold Path’ বানিয়ে নিতে পারে। অন্যদিকে কোরআনের অসংখ্য আয়াতে সুস্পষ্ট করেই লিখা আছে:


2.2: This is the Scripture whereof there is no doubt, a guidance unto those who ward off evil.


2.256: Let there be no compulsion in religion: Truth stands out clear from Error.


32.2: This is the Revelation of the Book in which there is no doubt – from the Lord of the Worlds.


10.37: This Qur’an is not such as can be produced by other than God; on the contrary it is a confirmation of revelations that went before it, and a fuller explanation of the Book – wherein there is no doubt – from the Lord of the worlds.


23.70: Do they say: There is madness in him? Nay, he has brought them the Truth, but most of them hate the Truth.


41.53: We will soon show them Our signs in the Universe and in their own souls, until it will become quite clear to them that it is the Truth. Is it not sufficient as regards your Lord that He is a witness over all things?


গৌতম বুদ্ধ নিজেই সত্য সম্পর্কে নিশ্চিত না হওয়া সত্ত্বেও তাঁর অনুসারীরা তাঁর বাণীকে কোনরকম সংশয়-সন্দেহ ছাড়াই গডের বাণীর মতই বিশ্বাস করে, যদিও গৌতম বুদ্ধ নিজেকে যেমন গডের অবতার বা মেসেঞ্জার বলে দাবি করেননি তেমনি আবার তাঁর বাণীকে গডের রেভিলেশন বলেও দাবি করা হয়নি। অন্যদিকে প্রফেট মুহাম্মদ নিজেই যেহেতু সত্য সম্পর্কে নিশ্চিত ছিলেন সেহেতু মুসলিমরা তাঁর দাবি অনুযায়ী তাঁর বাণীকে গডের রেভিলেশন হিসেবে বিশ্বাস করে। তাদের বিশ্বাসের স্বপক্ষে যথেষ্ট যুক্তি-প্রমাণও উপস্থাপন করা হয়েছে। তাহলে কাদের বিশ্বাস অযৌক্তিক বা অন্ধ-বিশ্বাস সেটা কিন্তু সহজেই অনুমেয়। আর নিজে কোন বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে অন্য কাউকে সেই বিষয় নিয়ে সংশয় প্রকাশ করতে বলাটা তো স্রেফ বোকামী।

Created with the Personal Edition of HelpNDoc: Free HTML Help documentation generator