আল্লাহ সরাসরি কথাবার্তা vs ওহীর মাধ্যমে কথা

Parent Previous Next

20:12

আমিই তোমার পালনকর্তা, অতএব তুমি জুতা খুলে ফেল, তুমি পবিত্র উপত্যকা তুয়ায় রয়েছ।

4:164

আর আল্লাহ সরাসরি মূসার সাথে কথাবার্তা করেছেন।

 

42:51

কোন মানুষের জন্য এমন হওয়ার নয় যে, আল্লাহ তার সাথে কথা বলবেন। কিন্তু ওহীর মাধ্যমে অথবা পর্দার অন্তরাল থেকে অথবা তিনি কোন দূত প্রেরণ করবেন, অতঃপর আল্লাহ যা চান, সে তা তাঁর অনুমতিক্রমে পৌঁছে দেবে। নিশ্চয় তিনি সর্বোচ্চ প্রজ্ঞাময়।

আয়াতদুটো 41:164 , 42:51 পরস্পর বিরোধী।


জবাব:

আয়াতদুটো 41:164 , 42:51 পরস্পর বিরোধী মনে হলেও এদের মধ্যে কোন কন্ট্রাডিকশন নেই। আসলেই কোরানে কোন কন্ট্রাডিকশন নেই।

একটা উদাহরন দেই-

ধরুন আপনাদের পাড়ার ইমাম সাহেবের স্ত্রী খুব পর্দানশীন। কারো সামনে যান না। আপনি ইমাম সাহেবের বাড়ি যেয়ে জিজ্ঞাসা করলেন , "ইমাম সাহেব বাড়ি আছেন?"ইমাম সাহেবের স্ত্রী পর্দার আড়াল থেকে জবাব দিলেন , " উনি বাড়ি নেই"।"কোথায় গেছেন?""বাজারে গেছেন"।

এই যে আপনাদের মাঝে কথা হলো , এটা কি সরাসরি কথাবার্তা নয়?  



২০:১১ অতঃপর যখন তিনি আগুনের কাছে পৌছলেন, তখন আওয়াজ আসল হে মূসা,


বক্তাকে যখন দেখা যায় না বা পর্দার অন্তরালে থেকে কথা বলে , তখনই বলা হয় আওয়াজ আসল।


মূসা আওয়াজ শুনেছেন , সরাসরি কথা হয় নি । কথা যেটা হয়েছে সেটা পর্দার অন্তরালে থেকে। আল্লাহ ও এভাবেই মূসার সাথে সরাসরি কথাবার্তা বলেছেন।



Created with the Personal Edition of HelpNDoc: Easy to use tool to create HTML Help files and Help web sites